যশোরে কৃষকের ধান কেটে দিলেন সাংস্কৃতিক কর্মীরা - যশোর নিউজ - Jessore News

Breaking

Post Top Ad


Post Top Ad

Responsive Ads Here

Friday, May 1, 2020

যশোরে কৃষকের ধান কেটে দিলেন সাংস্কৃতিক কর্মীরা


যশোরে শ্রমিক সংকটে পড়া দরিদ্র চাষিদের ধান কেটে দিচ্ছে সাংস্কৃতিক কর্মীরা। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে আজ শুক্রবার সকাল থেকে এ ধান কাটা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রথম দিন তারা যশোর সদর ও মনিরামপুর উপজেলা দুই গ্রামে ৫ বিঘা জমির ধান কেটে দিয়েছেন। শ্রমিক সংকটের এ সময়ে বিনাখরচে ধান কাটতে পেরে কৃষকরাও খুশি। 

সকালে মনিরামপুর উপজেলার রোহিতা গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক সানোয়ার আলম খান দুলু, জোটের নেতা হারুন-অর-রশীদ ও সুকুমার দাসসহ সংগঠনের নেতাকর্মীরা ধান কাটছেন। এর মধ্যে তারা দরিদ্র কৃষক লিটন রহমানের এক বিঘা জমির ধান কাটা প্রায় শেষ করেছেন। এখানে তারা দুই বিঘা জমির ধান কেটে দেবেন। 

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট যশোর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সানোয়ার আলম খান দুলু বলেন, প্রতিবছর ধান কাটা মৌসুমে সাতক্ষীরাসহ বিভিন্ন জেলা থেকে ধান কাটা শ্রমিক আসে যশোর অঞ্চলে। এবার করোনার কারণে সেসব এলাকা থেকে বেশির ভাগ শ্রমিক আসতে না পারায় রয়েছে শ্রমিক সংকট। এ কারণে জনসংকটে পড়া দরিদ্র কৃষকের পাকা ধান কেটে দেওয়ার উদ্যোগ সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের যশোর শাখার। তিনি আরো বলেন, জনসংকটে পড়া এমন দরিদ্র কৃষকদের জন্য আমাদের এই কার্যক্রম চলমান থাকবে।

জোটের নেতা সুকুমার দাস এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে যারা ধান কাটছে তাদের মাধ্যমে ধান নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা নেই। কারণ, আমাদের সাথে যারা ধান কাটতে নেমেছেন তারা প্রায় সকলেই কৃষক পরিবারের সন্তান। পাশাপাশি প্রায় সবারই ধান কাটার অভিজ্ঞতা আছে।

কৃষক লিটন রহমান বলেন, আমি জমি বর্গা নিয়ে ধান চাষ করিলাম। এখন জন পাওয়া কঠিন। আবার পাওয়া গেলি জনের দামও অনেক বেশি। ধান কাটতি পারতিলাম না। এই বিপদে ইনারা বিনাপয়সায় আমার ধান কাইটে দিল। তাগের এই উপকারে আমি খুব খুশি। 

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আরেকটি দল সদর উপজেলার সতিঘাটার গ্রামে আহাদ আলী ও মিনহাজ সর্দারের ৩ বিঘা জমির ধান কেটে দেন। 

Post Top Ad

Responsive Ads Here