যশোরের বেনাপোলে সিজার বাণিজ্যের বলি হলো নবজাতক - যশোর নিউজ - Jessore News

Breaking

Post Top Ad


Post Top Ad

Responsive Ads Here

Thursday, November 14, 2019

যশোরের বেনাপোলে সিজার বাণিজ্যের বলি হলো নবজাতক


যশোরের বেনাপোলে রজনী ক্লিনিকের সিজার বাণিজ্যের কারণে এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী অপচিকিৎসার প্রতিবাদ জানিয়ে ক্লিনিক বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন। এ ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

বুধবার (১৩ নভেম্বর) রাত ১০টায় সিজারের পরে অবহেলার কারণে এ নবজাতকের মৃত্যু হয়। নিহত নবজাতক বেনাপোল পৌরসভার নারায়ণপুর গ্রামের নাজমা বেগমের ছেলে।

প্রসূতি নাজমা বেগমের বাবা আনোয়ার রহমান জানান, তার মেয়ের প্রসব বেদনা উঠলে বুধবার সকাল ৮টায় তিনি রজনী ক্লিনিকে ভর্তি করেন। সেখানকার কর্মীরা আলট্রাস্নোগ্রাফিসহ যাবতীয় পরীক্ষা করে জানায় মা ও শিশু দুজনেই সুস্থ আছে। পরবর্তীতে তারা জানায় সিজার করতে হবে। এ দিকে সিজারের জন্য সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অপেক্ষায় থেকে অসুস্থ হয়ে পড়ে তার মেয়ে। এ সময় তিনি যশোর নিতে চাইলে ক্লিনিকের তত্ত্বাবধানকারী সুইট তাকে বলেন, তাদের হাতে ভালো ডাক্তার আছে বিকালের মধ্যে চলে আসবে। তাকে অপেক্ষা করতে বলেন। কিন্তু ডাক্তার সন্ধ্যা ৭টায় এসে সিজার করেন। সিজারে দেরি হওয়াতে নবজাতক মারা যায়।

ক্লিনিকের ডাক্তার আসাদুজ্জামান জানান, গর্ভবতী নারীর ডায়াবেটিস ছিল। এমন রোগীর সিজার ঝুঁকি থাকে। তবে তিনি সন্ধ্যায় অপারেশন করবেন ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ তা জানতেন। এখানে তার কোনো দোষ নেই।

যশোরের নাভারণ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার জুয়েল ইমরান বলেন, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। নিহত নবজাতকের পরিবার যদি অভিযোগ করে তবে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ দিকে স্থানীয়রা জানান, কোন নিয়মনীতি না মেনে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ক্লিনিক ব্যবসা করছে কর্তৃপক্ষ। এতে প্রায়ই ঘটছে ছোট বড় দুর্ঘটনা। এছাড়া যারা ক্লিনিকে পরীক্ষা-নিরীক্ষার কাজ করেন তাদের ভালো অভিজ্ঞতাও নেই। বিভিন্ন মহলকে ম্যানেজ করে তারা এ ব্যবসা চালাচ্ছে।

এই ক্লিনিক বন্ধের দাবি জানান স্থানীয়রা।

Post Top Ad

Responsive Ads Here