যশোরে রোহিঙ্গা সন্দেহে তিন যুবককে গণধোলাই, হাসপাতালে ভর্তি - যশোর নিউজ - Jessore News

Breaking

Post Top Ad


Post Top Ad

Responsive Ads Here

Sunday, May 12, 2019

যশোরে রোহিঙ্গা সন্দেহে তিন যুবককে গণধোলাই, হাসপাতালে ভর্তি

যশোরে রোহিঙ্গা সন্দেহে তিন যুবককে গণধোলাই দিয়েছে জনতা। পুলিশ তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। স্থানীয়দের অভিযোগ, তারা রোহিঙ্গা নাগরিক। ছেলে ধরার জন্য গ্রামে গ্রামে ঘুরছিল।

গণধোলাইয়ের শিকার তিন যুবক আসলেই রোহিঙ্গা নাগরিক কি না তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তাদের নাম জুয়েল (৩৫), শহিদ (৩০) এবং রেনে চৌধুরী (৩২)। 

চাঁচড়া ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) হারুণ অর রশিদ জানান, চাঁচড়া মধ্যপাড়া এলাকায় শনিবার রাত ১০টার দিকে রেনে চৌধুরী নামে এক যুবককে আটক করে পুলিশে সংবাদ দিলে তাকে উদ্ধার করে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। রেনে চৌধুরী বার্মার নাগরিক বলে জানিয়েছেন। 

স্থানীয়রা জানান, রেনে চৌধুরী চাঁচড়া এলাকায় রাত সাড়ে ৯টার দিকে ঘোরাফেরা করতে থাকেন। এসময় তার চলাফেরা এবং আচরণে সন্দেহ হয় স্থানীয়দের। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি কোনো কিছু সঠিক উত্তর দিতে না পারায় ছেলে ধরা সন্দেহে স্থানীয়রা তাকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপার্দ করে। পুলিশ তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েছে।

যশোর কোতয়ালি মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আমির হোসেন জানান, শনিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে স্থানীয়দের সংবাদে রাজারহাট থেকে জুয়েল ও শহিদকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তারা খালি গায়ে যশোর সদর উপজেলার রামনগর পিকনিক কর্নার এলাকায় ঘোরাফেরা করছিলেন। এলাকাবাসীর সন্দেহ হলে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে। তারা সদুত্তর দিতে না পারায় স্থানীয়রা তাদের গণধোলাই দেয়। পরে তাদের উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তারা কখনও বার্মার নাগরিক আবার কখনও এদেশের নাগরিক বলে দাবি করেন। 

যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক কাজল মল্লিক গণধোলাইয়ের শিকার তিন যুবককে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে বলে জানান।

Post Top Ad

Responsive Ads Here